চমক দেখিয়ে আসছে প্রথম বাংলাদেশি ওপেন ওয়ার্ল্ড গেম ‘আগন্তুক’

ছোটবেলায় যখন জিটিএ ফাইভের মতো গেমসগুলো খেলতাম, তখন মনের মধ্যে প্রায়ই একরকম আফসোসবোধ হতো, ‘ইশশ, বাংলাদেশিরাও যদি এমন কোনো ওপেন ওয়ার্ল্ড গেম বানাতো যেটা পুরো পৃথিবীর মানুষেরা খেলতে পারবে।’ নিশ্চিতভাবে বলা যায়, আমার মতো অসংখ্য বাংলাদেশির এমন আক্ষেপ ছিল। অবশেষে সেই আক্ষেপের বৃত্ত ভেঙে সেখান থেকে বেরিয়ে আসার সময় এসেছে। ব্যাপক চমক দেখিয়ে অতিশীঘ্রই আসছে বাংলাদেশের তৈরি প্রথম ওপেন ওয়ার্ল্ড গেম – ‘আগন্তুক’ । আগামীকাল ১৫ই নভেম্বর বিখ্যাত গেম ইঞ্জিন ‘ইউনিটির’ ভারতে আয়োজিত এক ইভেন্টে ইউটিউবে প্রকাশ পেতে চলেছে আগন্তুকের স্পয়লার ।

ঢাকা শহরের আদলে তৈরি ‘আগন্তুক’ গেমটিতে অনেকটা চিরচেনা ঢাকাকেই খুঁজে পাওয়া যাবে। অবশ্য গেমটিতে শহরের নাম হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ঢাকার পুরোনো নাম ‘ঢাক্কা’-কে। এছাড়াও রিক্সা, সিএনজি চালিত অটোরিক্সা, লঞ্চসহ বাংলাদেশে প্রচলিত যানবাহনের দেখা মিলবে এই গেমে। সেই সঙ্গে গ্যাংফাইটের মতো বিষয় তো থাকছেই । গেমটি তৈরি করা হয়েছে বেশ উন্নতমানের গ্রাফিক্সে। গেমটি রিলিজ পাবে পার্সোনাল কম্পিউটার (পিসি) ও পিএস ফোর (PS4) ভার্সনে। তবে প্রযুক্তিগত কারণে এন্ড্রয়েড বা আইওএস ডিভাইসে আপাতত গেমটি খেলা যাচ্ছে না।

আগন্তুক গেমটি অবশ্য এখনো নির্মাণাধীন রয়েছে ৷ গেমটি তৈরি করছে বাংলাদেশি দুই প্রতিষ্ঠান – এম সেভেন প্রডাকশন ও এটরিতোর ৩৫ জন সদস্য। গেমটি তৈরি করা হচ্ছে ইউনিটির গেম ইঞ্জিনের সাহায্যে । আগামীকাল ১৫ তারিখ ইউনিটির ইভেন্টের সময় ইউটিউব প্রিমিয়ার প্রকাশের কিছুদিনের মধ্যেই গেমটি সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানা যাবে। গেমটির রিলিজ ডেট, পিসি কনফিগারেশন, কোথায় গেমসটি কিনতে পাওয়া যাবে – ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সেসময়ই আগন্তুক কর্তৃপক্ষ জানাবে। তবে গেমটির গল্পধারা বা ঘটনাপ্রবাহ (স্টোরিলাইন) সম্পর্কে জানা যাবে আগামীকাল ১৫ নভেম্বরেই।